বুধবার, ২৭ মে ২০২০, ০৭:২০ অপরাহ্ন
নোটিশ
Wellcome to our website...

সময়ের প্রয়োজনে উন্নয়নের মহাসড়কে রূপান্তর হচ্ছে আঁকাবাকাঁ আরকান সড়কটি

নিজস্ব প্রতিবেদক/উখিয়া নিউজ টুডে
আপডেট : সোমবার, ১৩ জানুয়ারী, ২০২০

সময়ের প্রয়োজনে উন্নয়নের মহাসড়কে রূপান্তর হচ্ছে সেই বৃটিশদের করা গ্রামীণ পাহাড়ী জনপদের মধ্যদিয়ে চলে যাওয়া আঁকাবাকাঁ আরকান সড়কটি।সম্ভবত ৪৭সালে সংগঠিত ২য় বিশ্বযুদ্বের সময় দ্রুততম সময়ে বৃটিশরা এই রাস্তার নির্মাতা।তারপর পূর্বপাকি স্তান তারপর বাংলাদেশ।দেশের সর্বদক্ষিণে বানিজ্যিক দেশ সমূহের সাথে সম্পর্কোন্নয়ের কারণে পর্যায়ক্রমে রাস্তার দৈর্ঘ্যবৃদ্বির ধীরগতি হলেওপরিধির বিস্তৃতি বেশ বেড়েছে,বাড়বে মৈত্রী সড়কের সুবাদে।তারউপর রোহিঙ্গার সংকটে সহযোগিতা করতে আসা দেশী বিদেশী সেবা সংস্হাগুলোর আনাগোনা সহ সময়েন প্রয়োজ নে দেশের সর্ব দক্ষিণের উপজেলাদ্বয় মনে হয় সবচেয়ে জনবহুল এবং জনগুরুত্বপূর্ণ উপজেলা য় পরিণত হয়েছে।এমনিতেই এই আরকান সড় কের উভয় পাশেই গ্রামের সংস্পর্শ থাকায় বেশ দুর্ঘটনা ঘটেছে অতীতে।তার উপর পূর্বে তুলনায় বহুগুণ বেড়ে যাওয়া পরিবেশ পরিস্হিতি ঝুকির মূখে উখিয়া টেকনাফ বাসী।অধিকন্তু শিক্ষার্থীরা ওজনসাধারণ গরুছাগল ছাড়াও লিংকরোড থেকে টেকনাফ পর্যন্ত রাস্তাঘেঁষে রয়েছে শতাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্টান সহ বেশ কিছু ধর্মীয় প্রতিষ্টান।এখন এই আরকান সড়কের ৮শত কোটি টাকার উন্নয়নের কাজ এগিয়ে চলায় এলাকার আশপাশের চেহারা পরিবর্তন হয়ে সম্ভাবনাময় এলাকা হিসাবে পরিগনিত হলে ও পাশাপাশি ব্যাপাক দুর্ঘটনার আশংকা করছেন সচেতন মহল।কারণ হিসাবে দেখা যায় রোহিঙ্গা আপদকালীন সময়ে আর্থিক সংকট মোকাবেলা সহ সুযোগের সদব্যবহার কারীদের একটি অংশের কারণে টমটম,ইন্জিন রিকসা চালক দের অধিকাংশই অপ্রাপ্ত বয়স্ক।প্রশাসন বিষয়টি অবগত হলেও অজ্ঞাত কারণে অধরা ঐসব।যান চলাচলের অবস্হা পর্যবেক্ষণ করতে গিয়ে দেখা হয় সাবেক সাংসদ জেলা বিএনপির সভাপতি শাহজাহান চৌধুরীর সাক্ষাত মেলে উনার বাড়ীর সামনে।বৃক্ষাচ্ছাদিত রাস্তার অংশ টি মূলত উনার কারনেই রক্ষা হয়েছে।উনিও সড়কের কাজ সম্পন্ন হবার পর ব্যাপক দুর্ঘট নার অাশংকা করেছেন।তিনি পরামর্শ দিয়ে বলেন ৫ ইউনিয়নের অর্থায়নে সড়কের পাশ ঘেষে বিকল্প সড়কই কেবল জননিরাপত্তা নিশ্চিৎ করতে পারে।পাশাপাশি Ngoদের মাধ্যমে জনসােতনতা মূলক প্রোগ্রাম নেওয়ার পরামর্শ দেন।আমাদের আশা তাই করবে সংশ্লি ষ্টরা।

শেয়ার করুন::
error2
Tweet 20
fb-share-icon20


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর::