শনিবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২০, ১০:০৭ অপরাহ্ন
নোটিশ
Wellcome to our website...

উখিয়ায় পল্লী বিদ্যুতের গ্রাহক হয়রানী বেড়েই চলছে

এইচ কে রফিক উদ্দিন, উখিয়া
আপডেট : মঙ্গলবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০২০

প্রধান মন্ত্রীর উদ্যোগ,ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ।
এই স্লোগান কে কার্যকর করতে বিদ্যুতের সরবারহ বাড়লেও অফিস কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের দিয়ে প্রতিনিয়ত হয়রানীর শিকার হচ্ছে গ্রাহকরা।

উখিয়ায় পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে ৫৫ হাজার গ্রাহকের গলার কাঁটা পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে কর্মরত ষ্টাফগণ বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ভুক্তভোগী মাষ্টার জানে আলম বলেন, নতুন সংযোগ নিতে নির্দিষ্ট সময় অবধারীত থাকলেও গন্ডগোল হয়ে যাচ্ছে অফিসের ফাইল বাইল্ডিং,হারিয়ে যাচ্ছে প্রায় কাগজপত্র,এতে মাসের পর মাস অতিবাহিত হলেও সংযোগের দেখা মিলছে না গ্রাহকদের। কিন্তু অফিসে অবস্হানরত ঘোঁরঘোর করা দালালদেন কাছে দারস্হ হলে তড়িতে মিলে সংযোগ।কারণ কমিশনের প্রায় চলে যায় জোনাল অফিসের কর্মচারীদের পকেটে।

আবার, উখিয়ার জোনাল অফিসে কর্মরচারিদের কাছে গ্রাহকরা সেবা সম্পর্কে জানতে চাইলে তেলে বেগুনে জ্বলে উঠে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

কথায় কথায় মিটার সংযোগ বিচ্ছিন্যকরন ও জরিমানা করার হুমকি দিয়ে সাধারন গ্রাহকদের দমিয়ে রাখার অভিযোগ রয়েছে খোদ কর্মকর্তাদের উপরেই।

কোন কোন সময় দেখা মিলে দীর্ঘ লাইন যেন ত্রাণের জন্য মানুষ দাড়িয়ে রয়েছে।
এই প্রসঙ্গে বিদ্যুৎ গ্রাহক রহিম বলেন,নিতে নই বিল দিতে লাইন, এই যেন অদ্ভুত কান্ড।

সরজমিনে উখিয়ার জোনাল অফিসে ডিজিএমের রুমে দেখা যায় একাধিক গ্রাহক হয়রানীর বিষয়ে অবগত করছেন ডিজিএমকে। এসময় ডিজিএম তার সাধ্যমত পল্লী বিদ্যুতের অফিস নিয়মের ধোয়া তুলে বিষয়গুলোকে সমাধানের চেষ্টা করলেও গ্রাহক সন্তুষ্ট হতে পারছেনা।

এ ব্যাপারে ডিজি এম এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন,যারা মিটারের জন্য সরাসরি আবেদন করে তাদের কাজ দ্রুত হয় এবং আমার অফিসে দালালদের কোন স্থান নেই।

শেয়ার করুন::
error0


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর::