শিরোনাম::
সৌদি আরবে জ্বর-কাশিতে আক্রান্ত হয়ে কক্সবাজারের প্রবাসী যুবকের মৃত্যু ২৫ বছর ভারতে পালিয়ে ছিলেন বঙ্গবন্ধুর খুনি ক্যাপ্টেন মাজেদ আমিরাতে আরো ২৮৩ জন আক্রান্ত ও ১ জনের মৃত্যু দুইদিন দেখা যাবে পিঙ্ক সুপারমুন! আতংকিত হবেন না তাবলীগ ফেরত ১১জনকে উখিয়ার ইনানীর কোয়ারেইন্টানে ছাত্রনেতাদের প্রতিবেশীর মাঝেও ত্রাণ পাঠাচ্ছেন মাহমুদুল করিম উখিয়ায় করোনা সংক্রমণরোধে উপজেলা যুবদলের জীবাণুনাশক স্প্রে কোটবাজারে হোটেল শ্রমিকদের সহায়তা সামগ্রী দিলেন উখিয়া অনলাইন প্রেসক্লাব উখিয়ার জালিয়াপালং পশ্চিম সোনাইছড়িতে দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা নতুন আঙ্গিকে ‘উখিয়া নিউজ টুডে’
বুধবার, ০৮ এপ্রিল ২০২০, ০২:১১ পূর্বাহ্ন
নোটিশ
Wellcome to our website...

এসিএফ এর উদ্যোগে হাত ধোয়ার ব্যবস্থাকরণ ও জীবানু নাশক মেডিসিন ছিটানো

বার্তা পরিবেশক::
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২৬ মার্চ, ২০২০

সংক্রমণ প্রতিরোধে হাত ধোয়ার ব্যবস্থাকরণ ও জীবানু নাশক ছিটিয়ে কক্সবাজারে স্বাধীনতা দিবসের কর্মসূচী পালন করেছে আন্তর্জাতিক সংস্থা অ্যাকশন এগেইনস্ট হাঙ্গার-এসিএফ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে কক্সবাজার শহরের প্রধান সড়কের শহীদ সরণীর পৌরসভা গেইটে এ কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন।

এসময় স্প্রে মেশিন দ্বারা প্রধান সড়কে জীবানু নাশক ছিটিয়ে জেলা প্রশাসক ও এসিএফের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারাসহ কর্মিরা কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করেন।

এসিএফের এ ধরণের উদ্যোগকে প্রসংশনীয় মন্তব্য করে জেলা প্রশাসক কামাল হোসেন বলেন, এ কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে মানুষ রোগাক্রান্ত হওয়া হাত থেকে রক্ষার পাশাপাশি স্বাধীনতাযুদ্ধের বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধ-সম্মান জানানোর অনন্য দৃষ্টান্ত।

জাতির এ ক্রান্তিকালে সমাজের সকল স্তরের ব্যক্তি ও নানা প্রতিষ্ঠানগুলোকে এ ধরণের গণবান্ধব তথা শুভকর কর্মপন্থা নির্ধারণের আহবান জানান জেলা প্রশাসক।

কক্সবাজার শহরের প্রধান সড়কসহ জনগুরুত্বপূর্ণ এলাকাগুলোতে জীবানু নাশক ছিটানো এবং হাত-ধোয়ার ব্যবস্থা করোনাভাইরাস সংক্রমণ নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত এ কর্মসূচী অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন আন্তর্জাতিক সংস্থাটির সংশ্লিষ্টরা।

মহান স্বাধীনতাযুদ্ধের বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা-সম্মান জানাতে মানুষকে জীবানু সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষায় এ কর্মসূচী পালন করা হয়েছে বলে জানান অ্যাকশন এগেইনস্ট হাঙ্গার চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিচালক মোহাম্মদ মাহাদী।

মাহাদী বলেন, পুরো কক্সবাজার শহরে জীবানু নাশক ছিটানোর পাশপাশি জনগুরুত্বপূর্ণ ৫০ টি স্থানে সাবানসহ পানির জার স্থাপনের মাধ্যমে হাত-ধোয়ার ব্যবস্থা করেছে এসিএফ। এসব স্থানের পরিচ্ছন্ন উপকরণ শেষ হয়ে গেলে এসিএফর কর্মিরা পুনরায় সরবাহের ব্যবস্থা অব্যাহত রাখবে।

করোনার সংক্রমণ প্রতিরোধকে ‘জীবানুর বিরুদ্ধেও’ একটা যুদ্ধ বলে মন্তব্য করেন আন্তর্জাতিক সংস্থার এ কর্মকর্তা।

শেয়ার করুন::
error1
Tweet 20
fb-share-icon20


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর::