শিরোনাম::
কক্সবাজার পৌরসভায় জমির বিরোধ নিয়ে ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাদের অস্ত্র মহড়া ও গুলি বর্ষণ আহত ১৫ টেকনাফের বাহারছড়ায় দুগ্ধজাত শিশু রেখে মা উধাও বিজিবি অভিযান চালিয়ে লেদা সীমান্ত থেকে সাড়ে ৩ লাখ ইয়াবা উদ্ধার উখিয়া অনলাইন প্রেসক্লাব সভাপতি’র কৃতজ্ঞতা সিইএইচআরডিএফ’র বিশ্ব শান্তি দিবস উদযাপন। আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে হোয়াইক্যং ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হবেন হেলাল সিকদার। হ্নীলায় জনগুরুত্বপূর্ণ ষ্টেশন-পুরান বাজার সড়ক দ্রুত সংস্কার দাবী। টেকনাফের রঙ্গিখালীতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত তৈয়বের দাফন সম্পন্ন ; ঘাতকদের দ্রুত গ্রেফতার দাবী মোবাইল চুরির অভিযোগে ‘অপু ভাই’য়ের সহযোগী গ্রেফতার যাচাই.কমে ৩৬ টাকা কেজিতে মিলবে পেঁয়াজ!
বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:৩২ অপরাহ্ন

বর্তমান নির্বাচিত সভাপতি জনাব অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরীর নের্তৃত্বে উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগ সংগঠিত ও পরিচালিত হবে।

এম আর আয়াজ রবি।।
আপডেট : শনিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২০

গত ৭-সেপ্টেম্বর-২০২০ তারিখে উখিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে, উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের বর্তমান কমিটির বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্টিত হয়। উক্ত বর্ধিত সবায়, উখিয়া উপজেলা পরিষদের মাননীয় চেয়ারম্যান ও উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের নির্বাচিত সভাপতি মহোদয়ের বক্তব্য ভার্স্যুয়াল মাধ্যমে আমার শোনার সুযোগ হয়েছিল। উনার বক্তব্যের পুরোটাই ছিল বর্তমান উপজেলা আওয়ামীলীগের কমিটিকে ঊপেক্ষা করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাধিত হওয়া ‘সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক’ কমিটির গঠন প্রসংগে।

তিনি ও উপস্থিত উপজেলা আওয়ানীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ অন্যান্য অংগ ও সহযোগি সংগঠনের সকল বক্তাই মনে করেন, কথিত আহবায়ক কমিটি একটি অগনতান্ত্রিক ও অগঠনতান্ত্রিক উপায়ে গঠিত সম্মেলন প্রস্তুতি আহবায়ক কমিটি। এ কমিটির দাপ্তরিক কোন বৈধতা বাস্তবে নেই। কেননা, একটি আহবায়ক কমিটি গঠন করার পুর্বে বর্তমান নির্বাচিত কমিটিকে নোটিশের মাধ্যমে অবহিত করতে হবে এবং বর্তমান কমিটিকে ভেংগে দিতে হবে। বর্তমান নির্বাচিত কমিটিকে না জানিয়ে এবং বর্তমান কমিটি রহিত বা রদ না করে কিভাবে সম্মেলন প্রস্তুতিমূলক আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে তা কারও বোধগম্য নয় কিন্তু এটা উখিয়া উপজেলার কোন নেতা, কর্মী ও সাধারন আম জনতা কোনভাবেই মেনে নেয়নি এবং মেনে নিতে পারেন নি। তিনি আরও বলেন, তিনি গত ত্রিশ বছরের অধিক কাল যাবৎ উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগকে তীলে তীলে সংগঠিত করে আজকের এ পর্যায়ে নিয়ে এসেছেন।তিনি আওয়ামীলীগের দূর্দিনে ও দূঃসময়ে নেতা-কর্মী ও সমর্থকদেরকে শত প্রতিকূলতার মাঝেও ছায়ার মত থেকে সেবা, সাহস, বুদ্ধিপরামর্শ দিয়েছেন। তিনি বর্তমান ও অতীতের যাবতীয় প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে সহজ-সরল ক্ষেদোক্তি দিয়ে আরও অনেক কিছু বলেছেন যা উনার বর্নাঢ্য রাজনৈতিক ক্যারিয়ারের সাথে উতপ্রোতভাবে জড়িত।

তিনি আরও দ্ব্যর্থহীন কন্ঠে ঘোষনা করেন, ১৯৯১ ও ২০০১ সালের বিএনপি, জামায়াত ও ৪ দলীয় জোট সরকারের আমলে শত অত্যাচার, নিপীড়ন, নির্যাতন, হামলা-মামলা সহ্য করে এবং শত রক্তচক্ষু ঊপেক্ষা করে তিনি আওয়ামীলীগকে বটবৃক্ষের মত ছায়া-মায়া দিয়ে গেছেন। হাতে গুনা নেতা কর্মী ও সমর্থকবাহিনীকে আজকে প্রায় ৪০ হাজার কর্মীবাহিনীতে রুপান্তর করার দূঃসাহসিক কাজ গুলোর কথা তাঁর বক্তব্যে বার বার ফুটে তুলেছেন।

উখিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উখিয়া আওয়ামীলীগের সম্নানীত সভাপতি জনাব অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরী, আরও বলার চেষ্টা করেছেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এশিয়ার বৃহত্তম গনতান্ত্রিক রাজনৈতিক দলের একটি। এ দল বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের নের্তৃত্ব প্রদানকারী দল যা জাতির জনক বংগবন্ধুর হাতে পরিপূর্নতা পেয়েছে। বার বার বাংলাদেশের গন মানুষের প্রত্যকঝ ভোটে নির্বাচিত হয়ে সরকার গঠন করেছে। এ দল একটি নির্দিষ্ট গঠনতন্ত্র অনুসারে পরিচালিত হবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু কেহ বা কোন অপশক্তি গঠনতন্ত্র ও বৃহত্তর জনগোষ্টীকে পাশ কাটিয়ে রাতের অন্ধকারে যেন তেনভাবে বর্তমান নির্বাচিত কমিটিকে বাদ দিয়ে বা সম্পূর্ণভাবে অন্ধকারে রেখে নির্বাচন প্রস্তুতিমূলক আহবায়ক কমিটি গঠন করবে এবং উখিয়ার আওয়ানীলীগের নেতা কর্মী, বিভিন্ন অংগসংগঠন ও সহযোগি সংগঠনের নেতা কর্মীরা তা মেনে নেবে তা কখনও হতে পারেনা।

কথিত আহবায়ক কমিটিকে তিনি রীতিমত চ্যালেঞ্জ ঘোষনা করে বলেন, উখিয়া উপজেলা আওয়ানীলীগের নির্বাচিত কমিটির বিভিন্ন ইউনিয়নের নির্বাচিত সভাপতি সাধারন সম্পাদকসহ উপজেলা কমিটির সংখ্যাগরিষ্ট সদস্য ও হাজার হাজার নেতা- কর্মীসহ, অংগ সংগঠন সমূহের (যুবলীগ, ছাত্রলীগ, সৈনিক দল সহ অন্যান্য সহযোগি সংগঠনের) হাজার হাজার নেতা-কর্মীকে একই সূতায় গ্রথীত করে আমি নিশ্চয়ই বুঝাতে সক্ষম হয়েছি যে, উখিয়া আওয়ামীলীগের বর্তমান কমিটি মেম্বারদের প্রত্যক্ষ ভোটে গঠনতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত কমিটি। কেহ বা কোন স্বার্থান্বেষী মহল ইচ্ছে করলেই এ-ই কমিটি বিলুপ্ত বা রদ করতে পারেনা। গঠনতন্ত্রের ধারা, উপধারা ও সুনির্দিষ্ট নিয়মানুসারে নির্বাচিত কমিটিকে বিলুপ্ত করতে হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর::