সৈয়দ নজরুল ইসলাম চেয়ারম্যান বানবাসী মানুষের দুঃখ দুর্দশা লাঘবে ইঞ্জিল চালিত নৌকা উদ্বোধন

শেয়ার করুন-

বার্তা প্রেরক: কাজেই আনন্দ, কাজই জীবন। অতপর তীরে এসে ছুঁয়ে যাই। তেমনি করে হারিয়ে যাওয়া শৈল্পিক পুনরায় নূতন আদলে। গর্জনীয়া ইউনিয়ন পরিষদের মান্যবর চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সৈয়দ নজরুল ইসলাম সাহেব বানবাসী মানুষের দুঃখ দুর্দশা লাঘবে ১,৭০,০০০/( এক লক্ষ সত্তর হাজার) টাকা ব্যয়ে ইঞ্জিল চালিত নৌকা গতকাল জুমাবার স্থানীয় জনগণের মুখে মিষ্টি মুখ করিয়ে মাগরিব নামাজের পরপরই ২ নং ওয়ার্ড়ের ৭০/৮০ জনের দল মিলে দরদের বিদায় দিয়ে গর্জই খালে নেমে দেন।
আলহাজ্ব সৈয়দ নজরুল ইসলাম চেয়ারম্যান
ডাক আর শোরগোল একাকার হয়ে গিয়েছিল। উপস্থিত ছিল আবুল কাশেম সাবেক মেম্বার সহ বর্তমান মেম্বার আহসান উল্লাহ, তানজিদ, ছোটন। যা নিরেট সত্য যে, চেয়ারম্যান সাহেবের কেয়ার টেকার জনাব নুরুল হাকিম থেকে জানতে পারলাম, নৌকা তিন সপ্তাহ অধিক জুমছড়ি ব্রীজঘাটা ষ্টেশনে তৈরী করে কিংবা আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে। বিশ্বস্তসুত্রে জানতে পারলাম সৈয়দ আহমদ নামক মিস্ত্রি নৌকা তৈরী করতে গিয়ে তিন জন লোকবল লাগাতর ৮ দিন সময় নিয়ে করেন।
অত্যন্ত সুনিপুণ মিস্ত্রি একজন। সত্যিকার অর্থে তাঁর কাজটুকু দেখার মতো। মুলত নূতন ঢং এ আধুনিকতার ছোঁয়াই ভরপুর। এতে করে মাননীয় সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল এম.পি, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান জনাব রিয়াজুল আলম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব প্রণয় চাকমার নজরে আসে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সব মিলিয়ে আপাময় জন সাধারণ মহা হাসি খুশি যে আগামীতে বানবাসী মানুষের কষ্ট লাঘবে এই নৌকার ভুমিকা বহমান থাকবে বলে বিশ্বাস।
ধন্যবাদসহ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি মাটি ও মানুষের প্রিয় মুখ, প্রিয় নেতা জনাব আলহাজ্ব সৈয়দ নজরুল ইসলাম সাহেব গর্জনীয়া ইউনিয়ন পরিষদ কে, এ ধরণের সুন্দর উদ্যোগ নেওয়াতে।
লেখক:
মাস্টার আমির হোছাইন
সহকারি শিক্ষক
জুমছড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
রামু, কক্সবাজার।

শেয়ার করুন-

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *